Airtel & Robi User Only

প্রচ্ছদ » শেয়ারবাজার » বিস্তারিত

‘প্রসপেক্টাস যেন ফুলিয়ে ফাপিয়ে না দেখানো হয়’

২০১৮ এপ্রিল ২৮ ১৮:২১:৪৬
‘প্রসপেক্টাস যেন ফুলিয়ে ফাপিয়ে না দেখানো হয়’

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : কোম্পানির প্রসপেক্টাসের উপর ভিত্তি করে বিনিয়োগকারীরা বিনিয়োগ করেন। তাই প্রসপেক্টাসে প্রদত্ত আর্থিক হিসাবকে যেন ফুলিয়ে ফাপিয়ে না দেখানো হয়। অন্যথায় নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসির সুনাম নষ্ট ও বিনিয়োগকারীরা ক্ষতিগ্রস্থ হবেন বলে জানিয়েছেন পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান ড. এম খায়রুল হোসেন।

শনিবার (২৮ এপ্রিল) বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমবিএ) নতুন অফিস, ওয়েবসাইট উদ্বোধন এবং লোগো উন্মোচন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

খায়রুল হোসেন বলেন, আমরা ডিসক্লোজার ভিত্তিক প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) দিয়ে থাকি। এক্ষেত্রে প্রসপেক্টাসে প্রদত্ত তথ্যগুলোকে সঠিক হিসাবে মার্চেন্ট ব্যাংকারদেরকে নিশ্চিত করতে হবে।

বিএসইসির চেয়ারম্যান বলেন, পুঁজিবাজারের উন্নতিতে মার্চেন্ট ব্যাংকগুলোর ভূমিকা অনেক বেশি। কারণ তারা বিভিন্ন কোম্পানিকে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্তি নিয়ে কাজ করে। এখানে সঠিকভাবে আর্থিক প্রতিবেদন ও কর্মকাণ্ড বিশ্লেষণ করে কোন কোম্পানিকে বাজারে আনলে বিনিয়োগকারী তথা সবাই উপকৃত হয়। এক্ষেত্রে যারা ইস্যু না আনতে পেরে এখনও নিষ্ক্রিয় অবস্থায় রয়েছে; যৌথভাবে ইস্যু আনার মাধ্যমে তাদের সক্রিয় করার ব্যবস্থা করতে হবে। এতে বাজারে গতি আসবে।

তিনি বলেন, দীর্ঘমেয়াদী অর্থায়নের একটি বড় ক্ষেত্র হলো পুঁজিবাজার। যদি একটি শক্ত পুঁজিবাজার দাঁড় করানো যায়; যদি বিদেশিরা দেখেন আমাদের পুঁজিবাজারের ইস্যুগুলোর ডিসক্লোজারে যা বলছি বাস্তবে তা হচ্ছে বা রয়েছে; তখন এখানে প্রচুর পরিমাণে বিদেশি বিনিয়োগ বাড়বে।

তাছাড়া কৌশলগত বিনিয়োগ ইস্যুতে কেউ আসলে অনেক বিনিয়োগ আসবে। বহু বিদেশি প্রতিষ্ঠান এখানে বিনিয়োগ করবে। পাশাপাশি একটা সময়ে তাদের কেউ এই বাজারে লিস্টেড হবে। এতে পুঁজিবাজারের গভীরতা বাড়বে।

বিএসইসির চেয়ারম্যান বলেন, আমরা যদি বন্ড মার্কেট চালু করতে পারি; ডেরিভেটিভস এর মতো প্রোডাক্ট বিনিয়োগকারীদের কাছে পরিচিত করাতে পারি, তবে একটি দক্ষ পুঁজিবাজার গড়ে ওঠবে।

তিনি আরও বলেন, মার্কেট মেকাররা যাতে প্রকৃতভাবে কাজ করতে পারে আমরা তার ব্যবস্থা করেছি। তাদের প্রণোদনা দিয়েছি। প্রয়োজনে আরও বেশি প্রণোদনা দিবো যাতে তারা পুঁজিবাজারে শক্ত ভূমিকা রাখতে পারে।

এছাড়া পুঁজিবাজারের উন্নয়নে সব স্টেকহোল্ডার নিয়ে কাজ করবেন বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

বিএমবিএ সভাপতি নাছির উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিএসইসি কমিশনদ্বয়, ডিবিএ সভাপতি মোস্তাক আহমেদ সাদেক, ডিএসই পরিচালক মিনহাজ মান্নান, আহমেদ রশিদ লালী, শাকিল রিজভী, সাবেক বিএমবিএ সভাপতি ছায়েদুর রহমান, সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ আহসান উল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক খায়রুল বাশার আবু তাহের মোহাম্মদসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকতারা উপস্থিত ছিলেন।

(দ্য রিপোর্ট/এনটি/এপ্রিল ২৮, ২০১৮)