Airtel & Robi User Only

প্রচ্ছদ » রাজনীতি » বিস্তারিত

সম্মান নিয়ে সরকারের বিদায় নেয়া ভাল: মওদুদ

২০১৮ জুন ১০ ২০:৫৬:১৪
সম্মান নিয়ে সরকারের বিদায় নেয়া ভাল: মওদুদ

নোয়াখালী প্রতিনিধি:বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, সরকারকে একদিন না একদিন ক্ষমতা ছেড়ে দিতে হবে।

তবে সম্মানের সঙ্গে সরকার বিদায় নেয়া ভালো। আগামী নির্বাচন যাতে করে অবাধ নিরপেক্ষ হয় সেটাই দেশের জনগণের দাবি। সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে যে দল ক্ষমতায় আসুক জনগণ তা মেনে নেবে।

রবিবার দুপুর ২টায় নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার মানিকপুর গ্রামে তার নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় এসব কথা বলেন তিনি।

মওদুদ আহমদ বলেন, এ সরকারের জনপ্রিয়তা নেই। জনপ্রিয়তা থাকলে সরকার ও প্রশাসন রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ দলগুলোর সঙ্গে ফ্যাসিবাদী আচরণ করতো না। এ অবস্থা চিরস্থায়ীভাবে চলতে পারে না। এর অবসান একদিন হবেই।

তিনি বলেন, জনসমর্থনহীন, ভোটারবিহীন নির্বাচনের মাধ্যমে এ সরকার ক্ষমতায় রয়েছে। এ সরকার জনগণের স্বতঃস্ফূর্ত আন্দোলনের জোয়ারে টিকে থাকতে পারবে না। আগামী নির্দলীয় সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচনে সেটাই প্রমাণ হবে।

বিএনপি স্থায়ী কমিটির এ সদস্য বলেন, আমি যতবার নিজ বাড়িতে আসি, ২-৩ দিন পূর্ব থেকে রাতে পুলিশ বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের বাড়িতে গিয়ে তল্লাশি করে। তাদেরকে ভয়-ভীতি দেখায়, গ্রেফতার করে যাতে দলীয় কাজে কর্মীরা অংশ নিতে না পারে। এবারও আমি আসার দুই দিন আগে পুলিশ যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল মামুনকে গ্রেফতার করে এবং ছাত্রদল ও যুবদলের নেতাকর্মীদের বাড়িতে গিয়ে পুলিশি অভিযান করে।

মওদুদ আহমদ আরও বলেন, দেশে এমন স্বৈরাচারী সরকার, আমাদেরকে ইফতার মাহফিলও করতে দিচ্ছে না। ইফতার মাহফিল করতে হলে সরকারের কাছ থেকে অনুমতি নিতে হবে। ইফতার মাহফিল করার জন্য লিখিতভাবে আবেদন করলেও নানা অজুহাতে অনুমতি দেয়া হয় না।

রামপুর ইউনিয়নে একটি ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়, পুলিশ গিয়ে তা পণ্ড করে দেয়। কোম্পানীগঞ্জ ও কবিরহাট উপজেলা, বসুরহাট ও কবিরহাট পৌরসভায় বিএনপির ইফতার মাহফিলের অনুমতি এখনও দেয়নি প্রশাসন।

এ সময় উপজেলা বিএনপির সভাপতি হাজী আবদুল হাই সেলিম, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আলম শিকদার, বসুরহাট পৌরসভার সাবেক মেয়র ও পৌর বিএনপির সভাপতি কামাল উদ্দিন চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুর রহমান রিপন, পৌর যুবদলের সভাপতি শওকত হোসেন ছগির, উপজেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক জাহেদুর রহমান রাজন, পৌরসভা ছাত্রদলের সভাপতি ওবায়দুল হক রাফেল, সাংগঠনিক সম্পাদক আরিফুল হক আরিফ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

(দ্য রিপোর্ট/এমএসআর/জুন ১০, ২০১৮)