Airtel & Robi User Only

প্রচ্ছদ » শিক্ষা » বিস্তারিত

ইবির সান্ধ্যকালীন কোর্স বাতিল

২০১৮ অক্টোবর ০২ ১৯:৫৭:৫৮
ইবির সান্ধ্যকালীন কোর্স বাতিল

ইবি সংবাদদাতা : ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে সান্ধ্যকালীন কোর্স বাতিল করা হয়েছে। সোমবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৪২তম সিন্ডিকেটে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয় বলে রেজিস্ট্র্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফ জানান।

তিনি বলেন, কোর্সের চলতি ব্যাচ শেষ হলে আর কোন শিক্ষার্থী ভর্তি করানো হবে না।

এর আগে গত জুলাই মাসে ১১৩তম একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় উপাচার্য অধ্যাপক হারুন-উর-রশিদ আসকারী সান্ধ্যকালীন কোর্স প্রাথমিক ভাবে বন্ধ ঘোষণা করেন। ২০১০ সালে লোক প্রশাসন বিভাগের মাধ্যমে এই কোর্স শুরু হয়। বর্তমানে ২১টি বিভাগে সান্ধ্যকালীন কোর্স চালু রয়েছে।

এই সিদ্ধান্তের পর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মধ্যে মতবিরোধ দেখা দেয়। পরে ১৩০ জন শিক্ষক এর পক্ষে স্বাক্ষর করেন। সেই সঙ্গে শিক্ষক সমিতি প্রশাসনের সঙ্গে সহাবস্থানে যায়। সর্বশেষ এই সিন্ডিকেটে কোর্স বাতিলের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয় প্রশাসন।

এদিকে নিয়োগ বাণিজ্যের সঙ্গে জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়ায় ইংরেজী বিভাগের অধ্যাপক শাহাদাৎ হোসেন আজাদ ও বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক বাকী বিল্লাহ বিকুলকে শোকজ করা হয়েছে। সম্প্রতি ইসলামের ইতিহাস বিভাগের নিয়োগ নিয়ে এক প্রার্থী ও তার স্বামীর সঙ্গে এই দুই শিক্ষকের ২০ লাখ টাকা লেনদেনের কথপোকথনের অডিও রেকর্ড ফাঁস হয়। এরপর পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। কমিটির তদন্ত প্রতিবেদন আমলে নিয়ে আগামী সাত দিনের মধ্যে এই দুই শিক্ষককে কারণ দর্শাতে বলেছে সিন্ডিকেট।

এ বিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, সান্ধ্যকালীন কোর্স বাতিলের বিষয়ে একাডেমিক কাউন্সিলের সর্বসম্মতিক্রমে গৃহিত সিদ্ধান্ত সিন্ডিকেট অনুমোদন দিয়েছে। আর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রচলিত আইনি প্রক্রিয়ায় অভিযুক্ত ওই দুই শিক্ষককে আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দেয়া হয়েছে।


(দ্য রিপোর্ট/একেএমএম/অক্টোবর ০২,২০১৮)