Airtel & Robi User Only

প্রচ্ছদ » শেয়ারবাজার » বিস্তারিত

শেয়ারবাজারে দরপতন

২০১৯ মে ০৭ ১৭:৪৭:৫৮
শেয়ারবাজারে দরপতন

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) নানামুখী পদক্ষেপের পর তিন কার্যদিবস উত্থান হয় শেয়ারবাজারে। এরপর আবার সেই পুরানো চিত্র। গত ২ কার্যদিবস শেয়ারবাজারে পতন হয়েছে।

মঙ্গলবার (৭ মে) দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচক অর্ধশত পয়েন্ট এবং চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক দেড়’শ পয়েন্ট কমেছে। ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স সূচক ৫২ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ২৮৯ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ১১ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১৯ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১২২২ ও ১৮৬১ পয়েন্টে।

এদিন ডিএসইতে ৪৩৩ কোটি ৫০ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৪৬৭ কোটি টাকার। এ হিসাবে লেনদেন কমেছে ৩৪ কোটি টাকা।

ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৪৭টি কোম্পানির মধ্যে ৫৭টি বা ১৬ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। অন্যদিকে দাম কমেছে ২৬২টি বা ৭৬ শতাংশ কোম্পানির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৮টি বা ৮ শতাংশ কোম্পানির।

টাকার অংকে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে ফরচুন সুজের। এদিন কোম্পানির ৩২ কোটি ৩৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা পাওয়ার গ্রীডের ১৯ কোটি ৩২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে এবং ১৭ কোটি ৮৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন।

টপটেন লেনদেনে উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে- এস্কয়্যার নিট কম্পোজিট, মুন্নু সিরামিক, ইন্দো-বাংলা ফার্মাসিউটিক্যারস, ফাইন ফুডস, ন্যাশনাল টিউবস, ন্যাশনাল পলিমার এবং গ্রামীণফোন।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ১৬৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ২৩১ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২২৬টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ৪৭টির, কমেছে ১৬১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৮টির দর। আজ ২৬ কোটি ৪৯ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

(দ্য রিপোর্ট/এনটি/মে ০৭, ২০১৯)