Airtel & Robi User Only

প্রচ্ছদ » খেলা » বিস্তারিত

মরগ্যান আসছেন শুনেই ঢাকা ছেড়ে রংপুরে সাকিব!

২০১৯ আগস্ট ০৪ ১৭:০০:১১
মরগ্যান আসছেন শুনেই ঢাকা ছেড়ে রংপুরে সাকিব!

দ্য রিপোর্ট ডেস্ক: বন্ধু তামিম ইকবাল, অগ্রজপ্রতিম মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ-মুশফিকুর রহীম আর অনুজপ্রতিম সৌম্য সরকার, মেহেদী মিরাজ, মোস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ মিঠুন, সাব্বির রহমানরা যখন কলম্বোয় লঙ্কানদের কাছে খাবি খাচ্ছে, তখন সাকিব আল হাসান হুট করেই বিপিএলের দল পাল্টে ঢাকা ডায়নামাইটস ছেড়ে যোগ দিলেন রংপুর রাইডার্সে।

বিপিএলে এবার আরও দুটি চমক জাগানো দলবদল হয়েছে। সাকিবের আগেই দল পাল্টে নতুন মৌসুমে বিপিএলে নতুন দলে নাম লিখিয়েছেন তামিম ইকবাল আর মুশফিকুর রহীম। কুমিল্লাকে চ্যাম্পিয়ন করানো তামিম পুরনো শিবির ছেড়ে খুলনা টাইটান্সে আর চিটাগাং ভাইকিংস রেখে মুশফিকুর রহীম যোগ দিয়েছেন কুমিল্লায়।

এ দুটি দলবদল তেমন সাড়া জাগায়নি। কারণ আগে থেকে কিছু গুঞ্জন ছিল। তামিম কুমিল্লা ছেড়ে খুলনায় যেতে পারেন, সেটা গত বিপিএল শেষ হওয়ার কয়েক মাসের মধ্যেই শোনা গেছে। একইভাবে মুশফিকের কুমিল্লায় যোগদানের খবরও কম বেশি চাউর হয়েছিল।

কিন্তু সাকিব ঢাকা ছেড়ে যাবেন আর সেটাও নীরবে নিভৃতে, তা নিয়ে একটি কথাও হয়নি। এক কথায় কোনো রকম পূর্বসংকেত ছাড়া হঠাৎই ঢাকা থেকে রংপুর গেছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। যেহেতু আইকন বা এ+ ক্যাটাগরির ক্রিকেটারদের দল বেছে নেয়ার পূর্ণ স্বাধীনতা দেয়া আছে, তাই সাকিবও ইচ্ছামতো নতুন বছরে দলবদলের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সাকিব পছন্দের দল নিজে বেছে নেয়ায় কারো কিছু বলার নেই।

সে কারণেই সাকিব দল ছেড়ে নতুন ঠিকানা বেছে নেয়ায় খোদ ঢাকা শিবিরও কোনো রকম উচ্চবাচ্য করেনি। ঢাকা ডায়নামাইটসের প্রধান নির্বাহী নামি ক্রিকেট সংগঠক ওবায়েদ নিজাম বলেন, ‘এটা সাকিবের নিজের ইচ্ছার ব্যাপার। তিনি কোন দলে খেলবেন আর কোথায় খেলবেন না, সেটা একান্তই তার ব্যক্তিগত ইচ্ছা অনিচ্ছার ওপর নির্ভর করে। আমাদের কিই-বা বলার আছে এখানে?’

কিন্তু সাকিব ভক্ত-সমর্থক ও সাধারণ অনুরাগীদের মনে একটা প্রশ্ন থেকেই গেছে। তা হলো- সাকিব কেন কী কারণে ঢাকা ছেড়ে রংপুরে পাড়ি জমালেন? তাদের জানার আগ্রহ হলো, কী এমন ঘটনা ঘটলো যে সাকিব ঢাকার নেতৃত্ব ছেড়ে রংপুরে নাম লেখালেন?

এ প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়ে মনে করছেন, হয়তো দেশের অন্যতম বৃহত্তম কর্পোরেট হাউজ বসুন্ধরা সাকিবকে বড় অংকের অর্থ দিয়ে দলে ভিড়িয়েছে। তাই কেউ কেউ ‘বেটার অফার’কেই সাকিবের দল পাল্টানোর মূল কারণ বলে মনে করছেন।

সেটা অমূলক নয়। বেটার অফার ছিল অবশ্যই। ঢাকায় বেক্সিমকো তাকে যে পরিমাণ অর্থ দিত, তার চেয়ে নিশ্চয়ই বসুন্ধরা গ্রুপ বেশি দিয়েছে। তবে সেটাই মূল কারণ নয় এবং অবশ্যই প্রধান কারণ নয়। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সাকিবের ঢাকা ছাড়ার আসল কারণ অন্য।

মাঝে যতই দুই ধরনের কথা শোনা যাক না কেন, আসল খবর হলো ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে এবার খেলতে আসবেন ইংল্যান্ডের ইয়ন মরগ্যান। ঢাকার কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন মরগ্যানের ঢাকায় খেলার কথা নিশ্চিত করেছেন। সুজন জানিয়েছেন, সব কিছু চূড়ান্ত। মরগ্যান ঢাকার হয়েই খেলবেন এবার।

জন্মসূত্রে আইরিশ এই ক্রিকেটার বিপিএল খেলতে আসছেন বিশ্বকাপ বিজয়ী অধিনায়কের তকমা গায়ে এঁটে। এখন বিশ্বকাপ বিজয়ী দলের অধিনায়ককে নেতৃত্ব দেয়াটা ঢাকার ফ্র্যাঞ্চাইজিদের জন্য নৈতিক বাধ্যবাধকতা। ঢাকার ফ্র্যাঞ্চাইজি তথা মালিকরা নিশ্চয়ই মরগ্যানকেই দল পরিচালনার নেতৃত্ব দেবেন। খুব স্বাভাবিকভাবেই ধরে নেয়া যায়, মরগ্যানই হবেন এবার ঢাকার ক্যাপ্টেন।

ঢাকার ম্যানেজমেন্টের সাথে কথা বলে মোটামুটি সে ধারণাই মিলেছে। তাই ধরেই নেয়া যায় বিশ্বকাপ বিজয়ী দলের অধিনায়ক মরগ্যানই এবার বিপিএলে ঢাকার অধিনায়ক। ঢাকার সিইও ওবায়েদ নিজাম ও কোচ খালেদ মাহমুদ সুজনের সঙ্গে কথা বলে মনে হলো, তাদের সম্ভাব্য পরিকল্পনার কথা সাকিবও আগেই জেনে গেছেন।

এখন বাংলাদেশ তথা বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার হলেও সাকিব নিজেও ধরে নিয়েছেন, বিশ্বকাপ বিজয়ী দলের ক্যাপ্টেনকে বাদ দিয়ে নিশ্চয়ই আমাকে দল পরিচালনার দায়িত্ব দেবেন না ঢাকার ফ্র্যাঞ্চাইজিরা। তাই তিনি ধরে নিয়েছেন, ঢাকায় থেকে গেলেও আমাকে খেলতে হবে মরগ্যানের নেতৃত্বে।

এখন মরগ্যান যেমন ৫০ ওভারের ফরম্যাটে ইংলিশ দলের অধিনায়ক একইভাবে সাকিব আল হাসানও টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে বাংলাদেশের ক্যাপ্টেন। মাঝে গতবার প্রিমিয়ার লিগের আগে টি-টোয়েন্টি লিগ হলেও সব কিছু ধরলে বিপিএলকেই ধরা হয় বাংলাদেশে একমাত্র টি-টোয়েন্টি আসর। এখন জাতীয় দলের টি-টোয়েন্টি ক্যাপ্টেন হিসেবে সাকিব নীতিগতভাবে বিপিএলে ক্যাপ্টেন্সি করতে আগ্রহী এবং সেটাই শতভাগ স্বাভাবিক। অবস্থানগত দিক থেকে সাকিব তা চাইতেই পারেন, চাওয়ার কথাও। যেহেতু তিনি বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক, তাই তার বিপিএলের মতো আসরে একটা প্রতিষ্ঠিত দলকে নেতৃত্ব দেয়াটাও জরুরী।

আর সে চিন্তা থেকেই আসলে সাকিব ঢাকা ছেড়ে রংপুরে খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। কারণ রংপুরে গেইল, এবি ডি ভিলিয়ার্সের মত অনেক নামীদামি তারকা খেললেও তারা কেউই বিশ্বকাপ বিজয়ী দলের অধিনায়কের তকমা গায়ে মেখে বিপিএল খেলতে আসবেন না। যেটা থাকবে মরগ্যানের গায়ে। তাই সাকিবের দল ছাড়ার চিন্তা। আর সে চিন্তা থেকেই ফ্র্যাঞ্চাইজিদের সাথে সাথে যোগাযোগ ও কথাবার্তা চূড়ান্ত করে রংপুরে যোগ দেয়া।

(দ্য রিপোর্ট/আরজেড/আগস্ট ০৪, ২০১৯)