প্রচ্ছদ » শিক্ষা » বিস্তারিত

অনশনরত শাবি ছাত্র রাতুলের অ্যাপেনডিসাইটিস অপারেশন

২০২২ জানুয়ারি ২৪ ১১:০০:৪৬
অনশনরত শাবি ছাত্র রাতুলের অ্যাপেনডিসাইটিস অপারেশন

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক: উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমদের পদত্যাগ দাবিতে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) অনশনরত ছাত্র মাহিন শাহরিয়ার রাতুলের অ্যাপেনডিসাইটিস অপারেশন হয়েছে।

রবিবার রাত ১০টা ৫৫ মিনিটে সিলেটের একটি হাসপাতালে তার এ অপারেশন হয়। রাতুল আশঙ্কামুক্ত আছেন বলে চিকিৎসক জানান।

আন্দোলনকারীরা জানান, প্রথম দিন থেকে অনশনে বসা রাতুল রবিবার রাতে পেটের ডান পাশে ব্যাথা অনুভব করেন। এরপর তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

রাগীব রাবেয়া মেডিকেল কলেজের সার্জারি বিভগের প্রধান প্রফেসর ডা. নুরুল কাইয়ুম মোহাম্মদ মোরসালিন বলেন, রাতুল যখন হাসপাতালে আসেন, আমাদের মনে হয়েছে অ্যাপেনডিসাইটিস। পেটের ডান দিকে ব্যাথা ছিল, জ্বর ছিল। বেশ কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে আমরা নিশ্চিত হলাম এটা অ্যাপেনডিসাইটিস। অ্যাপেনডিসাইটিস এর লাস্ট স্টেজ ছিল। অপারেশন না করালে ব্লাস্ট হয়ে যেতো। ব্লাস্ট হওয়ার আগ মুহূর্তে আমরা কেটে বের করছি। এখন তাকে স্টেপ ডাউন ইউনিটে (এসডিইউ) রাখা হয়েছে । এখন আশংকা মুক্ত বলা যায়। মাহিন শাহরিয়ার রাতুল সমাজবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী।

গত ১৩ জানুয়ারি রাত থেকে প্রাধ্যক্ষের পদত্যাগের দাবিতে শুরু হওয়া আন্দোলনে ১৬ জানুয়ারি পুলিশি অ্যাকশনের পর উপাচার্যের পদত্যাগের দাবি তোলেন শিক্ষার্থীরা। বুধবার বিকেল ২টা ৫০ মিনিট থেকে ২৪ জন শিক্ষার্থী আমরণ অনশনে বসেন। পরবর্তীতে একজন শিক্ষার্থীর বাবা হৃদরোগে আক্রান্ত হলে তিনি বাড়ি চলে যান। পরে গতকাল শনিবার থেকে স্বেচ্ছা গণঅনশন কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। রবিবার সকাল পর্যন্ত আরও ৪ শিক্ষার্থী অনশনে বসেছেন।

রবিবার রাতে উপাচার্যের বাসভবনের পানি ও বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন আন্দোলনকারীরা। তারা ওই বাসভবনের সামনে মানব দেয়াল গড়ে তোলেন।

(দ্য রিপোর্ট/আরজেড/২৪ জানুয়ারি, ২০২২)