Airtel & Robi User Only

প্রচ্ছদ » ধর্ম » বিস্তারিত

জানাজার খাটিয়া বহন করার সময় কালিমা পড়া যাবে কি?

২০১৯ আগস্ট ২৯ ২২:৩০:১৭
জানাজার খাটিয়া বহন করার সময় কালিমা পড়া যাবে কি?

দ্য রিপোর্ট ডেস্ক : কুমিল্লা জেলার মুরাদনগরের সোনাকান্দার বাসিন্দা খলিল ভূঁইয়া জানান, ‘আমাদের এলাকায় জানাজার খাটিয়া বহন করার সময় লোকজন উচ্চস্বরে ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ’ ও বিভিন্ন কালিমার জিকির করে।’

‘কয়েকদিন আগের ঘটনা। এক জানাজার খাটিয়া নেওয়ার সময় লোকজন সমস্বরে ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ’-এর জিকির করছিল। এ দেখে আমাদের নতুন ইমাম সাহেব বললেন যে, এভাবে উচ্চস্বরে কালিমা পড়া বিদয়াত। এ কথা বলতেই কিছু লোকজন ইমাম সাহেবের উপর খেপে যায়। তাদের কথা হল, কালিমা পড়ছি এখানে বিদয়াতের কী হল? এ নিয়ে বেশ ঝামেলা সৃষ্টি হয়।’

জানাজার সময়ে উচ্চস্বরে জিকির করা প্রসঙ্গে খলিল ভূঁইয়া প্রশ্ন করেছেন, এ ব্যাপারে কুরআন-হাদীসের নির্দেশনা কী? এবং এক্ষেত্রে সাহাবায়ে কেরাম ও তাবেয়ীগণের আমল কী ছিল? বিস্তারিত দলিল-প্রমাণসহ জানানোর জন্য বিশেষ অনুরোধ রইল।

এই প্রশ্নের উত্তরে রাজধানীর মারাকাযুদ দাওয়া আল ইসলামিয়ার ইফতা বিভাগ থেকে জানানো হয়, ‘রাসুলে কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এবং সাহাবায়ে কেরাম জানাজা বহনের সময় চুপ থাকতেন। আখেরাতের বিষয়ে চিন্তামগ্ন থাকতেন। ইবনু জুরাইজ রাহ. বলেন-

أَنّ النّبِيّ صَلّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلّمَ كَانَ إِذَا تَبِعَ الْجِنَازَةَ أَكْثَرَ السّكُاتَ، وَأَكْثَرَ حَدِيثَ نَفْسِهِ.

নবী কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম যখন জানাজার পিছনে চলতেন তখন অধিক চুপ থাকতেন এবং চিন্তায় খুব মগ্ন থাকতেন। -মুসান্নাফে আবদুর রাযযাক, হাদীস ৬২৮২; মুসান্নাফে ইবনে আবী শাইবা, হাদীস ১১৩১৫

হজরত আবু হুরায়রা রা. থেকে বর্ণিত, নবী কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এরশাদ করেন- জানাজার পিছনে যেন শব্দ না করা হয় এবং আগুন না নেওয়া হয়। -সুনানে আবু দাউদ, হাদীস ৩১৬৩; মুসনাদে আহমাদ, হাদীস ৯৫১৫

সুনানে কুবরা বায়হাকী ও ইবনুল মুনযিরের আলআওসাতের এক বর্ণনা থেকে জানা যায়, সাহাবায়ে কেরামের আমল ব্যাপকভাবে এমনি ছিল; তাঁরা জানাযার পিছনে যাওয়ার সময় কোনো আওয়াজ করতেন না। -সুনানে কুবরা, বায়হাকী ৪/৭৪; আল আওসাত, ইবনুল মুনযির ৫/৪২২ (৩০৩৪)

এ সমস্ত হাদীস ও আছারের আলোকে ফকীহগণ বলেছেন, জানাযার পিছনে চলার সময় মূল কাজ হল আখেরাতের ফিকিরে থাকা। জিকির করতে চাইলে তা হবে অনুচ্চ স্বরে। এ ক্ষেত্রে জিকির করতে গিয়ে আওয়াজ উঁচু করা মাকরূহ।’

এ প্রশ্নের উত্তর দিতে যেসব তথ্যসূত্র ব্যবহার করা হয়েছে: -বাদায়েউস সানায়ে ২/৪৬; ফাতাওয়া তাতারখানিয়া ৩/৩৭; মুখতারাতুন নাওয়াযিল ১/৪০৮; ফাতহুল কাদীর ২/৯৭; ইমদাদুল ফাত্তাহ পৃ. ৬৩৮

(দ্য রিপোর্ট/একেএমএম/আগস্ট ২৯,২০১৯)